ইসরায়েলীদের দীর্ঘজীবনের রহস্য উন্মোচন: কারণ জানলে আপনি অবাক হবেন

ইসরায়েলীরা 100 বছর রোগমুক্ত থাকতে পারে

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মানুষের গড় আয়ু নিয়ে পর্যবেক্ষণ করলে দেখা যায়, ইসরায়েলের মানুষ অন্যদের তুলনায় দীর্ঘজীবী। গড়ে ইসরায়েলীরা প্রায় ৮২ বছর বয়স পর্যন্ত বেঁচে থাকেন, যা বিশ্বের অন্যতম সেরা রেকর্ড। কিন্তু প্রশ্ন হলো, ইসরায়েলীদের দীর্ঘজীবনের রহস্য এবং এই ক্ষুদ্র দেশটির মানুষ এত বেশি বয়স পর্যন্ত সুস্থ ও সবল থাকে কী করে?

ইসরায়েলীদের দীর্ঘজীবনের পেছনে অনেকগুলো কারণ রয়েছে। তাদের পরিমিত খাদ্যাভ্যাস, নিয়মিত ব্যায়াম, পরিবার ও সমাজকে গুরুত্ব দেওয়া, উন্নত চিকিৎসা ব্যবস্থা এবং সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো তাদের জীবনের প্রতি ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি। ইসরায়েলীরা প্রতিকূলতাকে জয় করে সামনে এগিয়ে যাওয়ার মানসিকতা রাখে।

এই ব্লগ পোস্টে আমরা ইসরায়েলীদের দীর্ঘ ও সুস্থ জীবনের গোপন সূত্রগুলো খুঁজে বের করার চেষ্টা করবো। কীভাবে তারা ১০০ বছর বয়স পর্যন্ত রোগমুক্ত থাকে সেই বিস্ময়কর তথ্য জানবো। সাথে তাদের অনুসরণযোগ্য জীবনশৈলী ও দৃষ্টিভঙ্গি সম্পর্কে আলোচনা করবো। আশা করি এই আর্টিকেলটি আপনাদের কাছে উপভোগ্য ও তথ্যবহুল হবে।

ইসরায়েলীদের দীর্ঘজীবনের রহস্য

ইসরাইল বিশ্বের শীর্ষ ১০টি দেশের একটি। এখানকার মানুষ দীর্ঘজীবী হওয়ার অন্যতম কারণ হল তাদের খাদ্যাভ্যাস। সরকার এমন লোকদের বলে লবণ কম খেতে। অত্যধিক লবণ খাওয়া আপনার উচ্চ রক্তচাপ, হৃদরোগ এবং স্ট্রোকের ঝুঁকি বাড়াতে পারে। বিশ্বজুড়ে এমন জায়গা রয়েছে যা ব্লু জোন নামে পরিচিত। এখানকার বেশিরভাগ মানুষের গড় আয়ু 100 বছর। ইসরাইল এমনই একটি দেশ। এই ধরনের মানুষ খুব কমই রোগে ভোগেন। ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশনের মতে, যেসব দেশের বাসিন্দাদের আয়ু বেশি এবং স্বাস্থ্য ভালো তাদের নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়েছে।

আরও পড়ুন : ২৫ বছরে বিয়ে না করলেই জনসম্মুখে শাস্তি!

১. খাদ্যাভ্যাস: ইসরাইল বিশ্বের শীর্ষ ১০টি দেশের একটি। এখানকার মানুষ দীর্ঘজীবী হওয়ার অন্যতম কারণ হল তাদের খাদ্যাভ্যাস। সরকার এমন লোকদের বলে লবণ কম খেতে। অত্যধিক লবণ খাওয়া আপনার উচ্চ রক্তচাপ, হৃদরোগ এবং স্ট্রোকের ঝুঁকি বাড়াতে পারে।

২. প্রচুর পরিমাণে ময়দা ব্যবহার করুন: শুধুমাত্র ময়দা ব্যবহার করুন। ময়দায় প্রচুর পরিমাণে ফাইবার, ভিটামিন এবং মিনারেল থাকে। এটি শরীরের জন্য ভাল, আপনার অন্ত্রকে সুস্থ রাখে এবং আপনার শরীরে অতিরিক্ত চর্বি জমতে দেয় না।

৩. ক্যালরিযুক্ত খাবার: এরা সবসময় কম ক্যালরির খাবার খান। কম ক্যালরিযুক্ত খাবার সবসময় শরীরের জন্য ভালো। এতে শরীরে অতিরিক্ত চর্বি জমবে না। আর শরীরে ভিটামিন ও মিনারেলের অভাব হয় না।

৪. সচেতনতা: বয়স বাড়ার সাথে সাথে যে কারো শারীরিক সমস্যা বাড়ে। ইসরায়েলের মানুষ এই সমস্যা থেকে দূরে থাকার প্রথম থেকেই সচেতন ছিল। পুষ্টিকর খাবার: তারা পুষ্টিকর খাবার খাওয়ার ওপর জোর দেন। এটি শরীরকে সুস্থ রাখে।

আরও পড়ুন : ‘ভার্জিন’ মেয়ে পছন্দ কিমের, প্রতি বছর ২৫ কিশোরীকে বাছাই করেন ‘ফূর্তি’র জন্য

৫. ডাক্তারের পরামর্শ: এই কঠোর নিয়মের জন্য ধন্যবাদ, ইসরায়েলের মানুষ দীর্ঘকাল সুস্থ থাকে। সুস্থ থাকতে সব সময় এই নিয়ম মেনে চলতে বলেন চিকিৎসকেরা।

৬. খুব স্বাস্থ্য সচেতন: এখানকার মানুষ খুব স্বাস্থ্য সচেতন। কোন কিছু সমস্যা হলেই সেটাকে তারা গুরুত্বের সাথে বিবেচনা করে এবং সে অনুযায়ী প্রতিরোধের ব্যবস্থা করে।

জীবনের এই ৬টি নিয়ম মেনে চললে তারা বিভিন্ন জটিল রোগ থেকে নিজেকে দূরে রাখতে পারে। একই সময়ে, আয়ু বৃদ্ধি পাবে।

সূত্র: টিভি৯

Juger Alo Google News   যুগের আলো’র সর্বশেষ খবর পেতে Google News অনুসরণ করুন