বাড়ছে বিশ্বব্যাপী মোবাইল গেমের বাজার

mobile game

বিশ্বব্যাপী বড় হচ্ছে গেমিং খাত। বাড়ছে বিশ্বব্যাপী মোবাইল গেমের বাজার। শুধু বিনোদন বা সময় কাটানো নয় দেশের অর্থনীতিতেও গুরুত্বপূণ ভূমিকা পালন করছে। করোনাকালীন সময়ে সারাবিশ্ব যখন টালমাটাল অবস্থা, তখন এ খাতটির বিস্তার বেড়েছে হু হু করে। বিশেষত দিনে দিনে আরও বাড়ছে মোবাইল গেমের জনপ্রিয়তা । চলতি বছর লাভজনক অবস্থায় থাকবে মোবাইল গেমিং। সম্প্রতি এক গবেষণায় এ তথ্য উঠে এসেছে ।

গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়, মাইক্রোসফটের এক্সবক্স সিরিজ এক্স/এস ও সনির প্লেস্টেশন ৫-এর জনপ্রিয়তা বাড়ায় হোম কনসোলের জন্য গ্রাহক ব্যয় বাড়বে। চলতি বছর ব্যয়ের হার ৩ শতাংশ বেড়ে ৪ হাজার ৩০০ কোটি ডলার ছাড়িয়ে যাবে। অন্যদিকে উইন্ডোজ কম্পিউটার ও অ্যাপলের ম্যাকবুকে ভোক্তা ব্যয় ৪ শতাংশ বেড়ে ৪ হাজার কোটি ডলার ছাড়াবে।

বিশ্লেষকরা বলছেন, ২০২৬ সাল নাগাদ বৈশ্বিক গেমিং বাজারের প্রবৃদ্ধি চলতি বছরের তুলনায় ১৩ শতাংশ বেড়ে ২১ হাজার ২৪০ কোটি ডলার ছাড়িয়ে যাবে। আর এ খাতের নেতৃত্ব দেবে মোবাইল প্ল্যাটফরম।

 

স্মার্টফোন ব্যবহার বৃদ্ধি ও মোবাইল কম্পিউটিংয়ের সক্ষমতা বাড়ায় গেমিং খাতের নেতৃত্ব দেবে মোবাইল প্ল্যাটফরম। এমনটাই সাম্প্রতিক এক গবেষণায় জানিয়েছে বোস্টন কনসাল্টিং গ্রুপ।

আরও পড়ুন: জীবন বাঁচাল অ্যাপল ওয়াচ

বিশ্বের অন্যান্য দেশের সাথে তাল মিলিয়ে বাংলােদেশেও মোবাইল গেমের বাজার বাড়ছে। পরিসংখ্যান অনুসারে, এই ৮০ বিলিয়ন ডলার মোবাইল গেমিং শিল্পে প্রায় 25 বিলিয়ন একটিভ খেলোয়াড় রয়েছে। শত শত গেমিং কোম্পানি গেমিং এর বিলিয়ন বাজার বাজার দখল করে। এর মাধ্যমে নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টি হচ্ছে; ভবিষ্যতে বিদেশী বিনিয়োগ বাড়বে।