জুমার দিন যে আমলে ৮০ বছরের গুনাহ মাফ

জুমার দিন

জুমার দিনের গুরুত্ব ও এ দিনের নির্দিষ্ট আমলের মাধ্যমে ৮০ বছরের গুনাহ মাফ হওয়ার বিষয়ে ইসলামে বিশেষ জরিপ রয়েছে। ইসলামে জুমার দিনটিকে সাপ্তাহিক ঈদের দিন বলা হয়। এ দিনে যে আমলে ৮০ বছরের গুনাহ মাফ হয়, তা জেনে নেয়া যাক।

পবিত্র কোরআনে সুরা জুমা নামে একটি স্বতন্ত্র সুরা আছে। এখানে মহান আল্লাহ বলেন, “হে ঈমানদারগণ! যখন জুমার দিন নামাজের জন্য আহবান করা হবে, তখন তোমরা দ্রুত আল্লাহর স্মরণের জন্য উপস্থিত হও এবং ক্রয়-বিক্রয় বন্ধ কর। এটিই তোমাদের জন্য কল্যাণকর, যদি তোমরা বুঝতে পার।” (সুরা জুমা, আয়াত :০৯)

আরও পড়ুন : গোসলের পর কি আবার ওজু করতে হবে? ইসলাম কি বলে

হযরত আবু হুরায়রা (রা.) বর্ণিত হাদিসে নবীজি সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন, ‘যে ব্যক্তি জুমার দিন আসর নামাজের পর ওই স্থানে বসা অবস্থায় ৮০ বার নিম্নে উল্লেখিত দরুদ শরিফ পাঠ করবে, তার ৮০ বছরের গুনাহ মাফ হয় এবং ৮০ বছরের নফল ইবাদতের সওয়াব তার আমলনামায় লেখা হয়।’ (আফদালুস সালাওয়াত: ২৬)

এছাড়াও জুমার দিনে যে কোনো দরুদ পাঠে রয়েছে অনন্য ফজিলত। জুমার দিনে বেশি বেশি দরুদ পাঠের কথা হাদিস শরিফে এসেছে। হযরত আবু উমামা রা. থেকে বর্ণিত, রসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন, ‘তোমরা জুমার দিনে আমার ওপর বেশি বেশি দরুদ পাঠ কর, কেননা তোমাদের পাঠ করা দরুদ আমার সামনে পেশ করা হয়। যে ব্যক্তি আমার ওপর সবচেয়ে বেশি দরুদ পাঠাবে, সে ব্যক্তি কেয়ামতের দিন সবচেয়ে আমার নিকটতম হবে।’ (আবু দাউদ ১০৪৭)

এই সব তথ্য প্রমাণ করে যে, জুমার দিন ইসলামে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এবং এ দিনে নির্দিষ্ট আমল মাধ্যমে মানুষের গুনাহ মাফ হওয়া সম্ভব।

Juger Alo Google News   যুগের আলো’র সর্বশেষ খবর পেতে Google News অনুসরণ করুন